সারাদেশ

অবৈধ স্থাপনা ও মাদকের আখড়া উচ্ছেদের দাবিতে আ’লীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন 

  আমিরুল কবির সুজন,  মিঠাপুকুর (রংপুর) প্রতিনিধি 13 September 2020 , 7:32:57 প্রিন্ট সংস্করণ

অবৈধ স্থাপনা ও মাদকের আখড়া উচ্ছেদের দাবিতে আ’লীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন 

মিঠাপুকুরে নিবন্ধিত একটি সমবায় সমিতির জমি বেদখলে নিয়ে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে সেখানে মাদকের আখড়া বসিয়ে নানা অপকর্ম করে আসছে কয়েক ব্যাক্তি। এসব দখলদারদের হাত থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে জমি উদ্ধার এবং মাদকের আখড়া বন্ধের দাবি জানিয়েছেন ঐ সমিতির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি তোজাম্মল হোসেন। শনিবার রাতে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এই দাবি জানান।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, লতিবপুর ইউনিয়ন কো-অপারেটিভ মাল্টিপারপাস সোসাইটি লিমিডেট ১৯৪৭ সালে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। ওই সময় ২৭ শতক জমি কিনে সেখানে সমিতির কার্যালয় নির্মাণ করা হয়। সমিতির ১০ শতক জমি রতন চন্দ্র, অমল চন্দ্র, দুলু চন্দ্র ও স্বপন চন্দ্রসহ কিছু লোক বেদখলে নিয়ে অবৈধ স্থপনা নির্মাণ করে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছে। শুধু তাই নয়- সেখানে তারা মাদকের আখড়া বসিয়ে এলাকার পরিবেশ বিনষ্ট করছে। এমতাবস্থায় তিনি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও মাদকের আখড়া বন্ধে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সংশ্লিষ্ট কতর্ৃপক্ষের সহযোগিতা চেয়েছেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, মাল্টিপারপাস সোসাইটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রবীণ সদস্যরা শুক্রবার সাইনবোর্ড লাগাতে যান। এসময় অবৈধ দখলদার পরিবারের নারী সদস্যরা দা, বটি, কুড়ালসহ ধারালো অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সাইনবোর্ড লাগাতে বাধা দেয়। এসময় তারা সোসাইটির সদস্যদের সাথে মারমুখি আচরণ করে। খবর পেয়ে আমি সেখানে গেলে অবৈধ দখলদাররা আরও উত্তেজিত হয়ে পড়ে। বেদখলকারীরা আমার প্রতিবেশী হওয়ায় আমি অভিভাবক হিসেবে তাদেরকে সংযত হতে অনুরোধ করি। কিন্তু কিছুতেই তারা কথা শোনেনি। বিশেষ করে রতন চন্দ্রের স্ত্রী ও মেয়ের অত্যন্ত রূঢ় আচরণে মারাত্নকভাবে ব্যথিত হই। অথচ এ পরিবারটি আমার বাবার আমল থেকে এখন পর্যন্ত বিভিন্ন ভাবে আমার সহযোগিতা পায়, তারাই আমাকে হেয় করার জন্য থানায় আমার নামে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেছে।’ তোজাম্মল হোসেন বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছি। আমার দ্বারা এলাকার হিন্দু পরিবার সামান্যটুকু ক্ষতিগ্রস্থ হবে- তা আমি কোনদিন কল্পনাও করতে পারিনা। বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত ঘটনা উদ্ঘাটনের জন্য প্রশাসনের কাছে জোর অনুরোধ জানাচ্ছি।

 

আরও খবর

Sponsered content

error: ছি ! ছি !! কপি করার চেষ্টা করবেন না ।