July 6, 2022, 12:55 pm
শিরোনামঃ
তারাগঞ্জ উপজেলায় বিদ্যুৎ লোডশেডিংয়ে জনজীবন বিপর্যস্ত- জ্বালানি সংকটে উৎপাদনে বিঘ্ন উলিপুরে পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্ট্রের পক্ষ থেকে ত্রাণ বিতরণ বাংলাদেশ কেমিস্টস্ এন্ড ড্রাগিস্টস্ সমিতি তারাগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি আকতার সম্পাদক এমদাদুল কৃষি কর্মকর্তা উর্মি তাবাসসুমের অবহেলায় ঝিমিয়ে গেছে তারাগঞ্জের কৃষিখাত লালমনিরহাটে প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেও এমপি’র উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন রাণীশংকৈলে কৃষক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি রহিম-সাধারণ সম্পাদক দ্বিগেন্দ্র উলিপুরে ৩’শ বন্যার্ত পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ উলিপুরে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু কুড়িগ্রামে বাবার পরকীয়ার জেরে ছেলে বাবলু হত্যা মামলায় পাল্টাপাল্টি মানব বন্ধন কুড়িগ্রামে সহায়তা বানভাসিদের পাশে বিন নেটওয়ার্ক ফাউন্ডেশন

উজানের বৃষ্টিপাতে ফের বেড়েছে তিস্তার পানি

লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ
  • সময় : Sunday, April 3, 2022
  • 53 ভিউ

উজানে ভারী বৃষ্টিপাতের কারনে ফের বেড়েছে তিস্তা নদীর পানি। তলিয়ে গেছে লালমনিরহাট জেলার তিস্তা চরে লাগানো মরিচ, পেঁয়াজ, রশুনসহ নানা ফসলের ক্ষেত।

রোববার (৩এপ্রিল) বিকেল ৩টায় জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার তিস্তা ব্যারেজ পয়েন্টে পানি প্রবাহ ছিল ৫১ দশমিক ১০ সেন্টিমিটার যা বিপদসীমার ১৫০ সেন্টিমিটার নিচে।
এর আগে গত ২৮ মার্চ পানি বৃদ্ধি পেয়ে তিস্তার চরে লাগানো বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়। আর সেই পানি নেমে যাওয়ার পরপরেই আবারও বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে তিস্তার বুকে চাষাবাদ করা ফসল ডুবে যাওয়ায় ক্ষতির মুখে পড়েছেন চাষিরা।
কৃষকরা বলছেন, প্রতিবছর শীতকালে পানি কমে যাওয়ার পর তারা তিস্তার বালুকাময় প্রান্তরে নানারকম ফসল চাষ করেন। এবার চৈত্র মাসে হঠাৎ তিস্তার পানি বাড়ায় কৃষকদের ফসলের ক্ষতি হয়েছে।
তিস্তা ব্যারেজ এলাকার পেঁয়াজ চাষি দেলোয়ার হোসেন বলেন, জীবনেও দেখিনি চৈত্র-বৈশাখ মাসে তিস্তার পানি বাড়ে। পানি বাড়ার কারণে আমার ছয় বিঘা পেঁয়াজ ক্ষেত ডুবে নষ্ট হয়েছে। এতে আমার ৩০ হাজার টাকা লোকসান হয়েছে
তিনি আরও বলেন, আমি অভাবী মানুষ। নিজের জায়গা-জমি নেই। তাই তিস্তার বুকে চাষাবাদ করে জীবনযাপন করি। এখন আমার অনেক ক্ষতি হলো।
তিস্তাপারের কদম আলী বলেন, সকাল থেকে তিস্তার উজানে পানি বেড়েছে। গত সাতদিনের চেয়ে এখন বেশি পানি রয়েছে।
হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের কৃষক আব্দুল জলিল বলেন, তিস্তার চরের প্রায় ছয় বিঘা জমিতে পেঁয়াজ চাষ করেছি। নদীর পানি বাড়ায় পেঁয়াজ পচে নষ্ট হয়ে গেছে। এতে প্রায় ৩২ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। এখন আমরা অসহায় হয়ে পড়ছি।
ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আসফাউদ্দৌলা বলেন, সকাল থেকে উজানে বৃষ্টিপাতের কারণে তিস্তায় পানি বেড়েছে। তবে বিপদসীমার অনেক নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।
তিনি আরও বলেন, তিস্তা ব্যারেজ এলাকায় বর্তমানে ছয় হাজার কিউসেক পানি রয়েছে। তবে পানি বৃদ্ধির ফলে তিস্তার বুকে চাষ করা কিছু ফসলের ক্ষতি হয়েছে।
লালমনিরহাট কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শামীম আশরাফ বলেন, তিস্তায় পানি আবারও বৃদ্ধি পেয়ে ফসলের ক্ষতি হয়েছে বলে শুনেছি। রংপুরে মিটিংয়ে আছি। আগামীকাল (সোমবার) কৃষকদের খোঁজ-খবর নেওয়া হবে। তবে জেলায়  ক্ষয়ক্ষতি তা এখনো নিরূপণ করা সম্ভব হয়নি।

সেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও খবর
© All rights reserved © 2019 LatestNews
Designed By BONGGONEWS.COM
themesba-lates1749691102