সারাদেশ

কাউনিয়ায় কিন্ডার গার্টেন শিক্ষক-কর্মচারীদের মানবেতর জীবন যাপন

  মোস্তাক আহমেদ, কাউনিয়া (রংপুর) প্রতিনিধিঃ 29 November 2020 , 3:24:31 প্রিন্ট সংস্করণ

কাউনিয়ায় কিন্ডার গার্টেন শিক্ষক-কর্মচারীদের মানবেতর জীবন যাপন

বৈশ্বিক মহামারী করোনা দূর্যোগের
কারণে সরকারী নির্দেশে উপজেলার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা করায়
কর্মহীন হয়ে পড়েছে কিন্ডার গার্টেনের শিক্ষক কর্মচারীরা।

তাদের বেতন ভাতা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কাউনিয়া উপজেলা ও হারাগাছ পৌর সভার কিন্ডার গার্টেনের শিক্ষক কর্মচারীরা পরিবার পরিজন নিয়ে তারা দীর্ঘ ৮মাস ধরে মানবেতর জীবন যাপন করছে।

 

শিক্ষার্থীদের বেতনের টাকায় চলা এ সব শিক্ষদের সহায়তায় কেউ এগিয়ে না আসায় পরিবার পরিজন নিয়ে দূর্ভোগে দিন কাটাচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানাগেছে কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছ পৌর সভা সহ ৬ ইউনিয়নে
প্রায় ৩১ টি কিন্ডার গার্টেনে প্রায় ৪ শতাধিক শিক্ষক কর্মচারী নিয়োজিত রয়েছে।

এরা প্রায় ১৪ হাজার কোমলমতি শিক্ষার্থী কে পাঠদান করে আসছিলেন। এসব শিক্ষা প্রতিষ্টানে শিক্ষার্থীদের বেতনের টাকায়
পরিচালিত হয়। এমন কী শিক্ষার্থীদের বেতনের টাকায় শিক্ষক কর্মচারীরা বেতন
ভাতা পেয়ে থাকেন। শিক্ষার্থীদের বেতনের টাকা ও প্রাইভেট টিউশনের টাকা
দিয়ে কোন মত চলতো পরিবারের ভরন পোষন। কিন্তু প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায়
শিক্ষার্থীদের বেতন দেয়া বন্ধ রয়েছে। পাশাপাশি বন্ধ রয়েছে প্রাইভেট
টিউশনিও। ফলে সব দিকের আয় বন্ধ হয়ে গেছে। সামাজিক মর্যাদা বিবেচনা
করে এদের দেয়া হয় না সরকারী কোন প্রকার সাহায্য। এদের দু একজনের নাম
সরকারী সাহায্যের খাতায় উঠলেও লাজ লজ্জার কারণে লাইনে দাড়িয়ে ত্রান নিতেও
পারছেনা। সরকার ননএমপিও ভুক্ত কিছু শিক্ষক কর্মচারীদের কিছু সহযোগিতা
করেছে। কিন্তু তা দিয়ে কি মাসের পর মাস চলা যায়। কয়েকজন কিন্ডার
গার্টেনের শিক্ষক বলেন আমরা সরকারী/বে সরকারী কোনটাই না, পাবলিক
চালিত প্রতিষ্ঠান। বেতন নয় ভাতা পাই। লকডাউনে তাও বন্ধ হয়ে গেছে। এখন
আমরা পরিবার পরিজন নিয়ে কষ্টে আছি। সবুজ কিন্ডার গার্টেনের অদ্যক্ষ
সাইদুল ইসলাম ও কেয়ার শিশু নিকেতনের অধ্যক্ষ মোশারফ হোসেন বলেন ছেলে
মেয়েদের নুতন কাপড় কিনে দিতে পারছি না, এখন পেটের ভাত জোগার করাই
যেখানে দায় সেখানে বিলাসিতার চিন্তা করা কঠিন ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।
সাধ আছে সাধ্য নেই অবস্থা। সরকারী ভাবে সাহায্যের ব্যবস্থা না করলে
কিন্ডারগার্টেনের সকল শিক্ষকের জীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠবে। কাউনিয়া
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ উলফৎ আরা বেগম জানান, লক ডাউন চলা
কালে কিছু শিক্ষক কর্মচারীকে সহযোগিতা করেছি। এছারাও প্রধানমন্ত্রী
কতর্ৃক নন এমপিও কারিগরি, মাদ্রাসা ও স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদ্রাসার শিক্ষক
কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দকৃত অনুদান ৫লাখ ৫৭ হাজার ৫শত টাকা বিতরণ করেছি।
তিনি বলেন সত্যিই তারা বেশ কষ্টে আছে।

আরও খবর

Sponsered content

error: ছি ! ছি !! কপি করার চেষ্টা করবেন না ।