ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন

তারাগঞ্জে কুর্শা ইউনিয়নের ৭, ৮, ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য হিসেবে দোয়াপ্রার্থী শ্রীমতি রত্না রানী সরকার

  সিরাজুল ইসলাম বিজয় 14 February 2021 , 5:16:11 প্রিন্ট সংস্করণ

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দল-মত নির্বিশেষে রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ড বাসীর উন্নয়নের স্বার্থে সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য হিসেবে দোয়াপ্রার্থী সৎ, ন্যায়, নিষ্ঠাবান ও ন্যায়ের প্রতিক, অন্যায়ের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ কন্ঠস্বর, মেহনতি গরিবের বন্ধু হিসেবে সকলের কাছে দোয়া চেয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নেমেছেন বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী শ্রী শ্যামল চন্দ্র সরকারের স্ত্রী শ্রীমতি রত্না রানী সরকার।

প্রচার-প্রচারণার শুরু থেকে সর্ব স্তরের জনগণের কাছ থেকে পাচ্ছেন ব্যাপক সমর্থন ও ভালোবাসা। এরই ধারাবাহিকতায় চূড়ান্তপর্বের জন্য যুদ্ধে নেমেছেন মানবিক, সামাজিক, নিরপেক্ষতার সূত্রে গাঁথা একজন পরিশ্রমী, সৎ ও সাদা মনের মানুষ শ্রীমতি রত্না রানী সরকার।

সংসার জীবনের পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে সমাজে নারীদের সচেতন ও কুসংস্কার দূর করে ছেলেমেয়েদের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে নিয়মিত কাজ করে চলেছেন। তিনি একজন মানবিক, সামাজিক ও নিরপেক্ষতা নীতি নিয়ে চলার কারণে এলাকাবাসী আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের মহিলা ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী হিসেবে তাঁকে নিয়ে ইতিমধ্যে নড়েচড়ে বসেছেন।

বিগত নির্বাচন গুলোতে যে সকল প্রার্থী জয়লাভ করে নির্বাচিত হয়েছেন, তাদের মধ্যে কোন জনপ্রতিনিধি ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ড বাসীর কোনো ধরনের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি। নির্বাচনের আগে অনেক প্রতিশ্রুতি দিলেও বারবার ব্যর্থ হয়েছে। এলাকাবাসীর অনাকাঙ্খিত প্রত্যাশা পূরণ ও তাদের পাশে থেকে নিরপেক্ষভাবে কাজ করবে এই অঙ্গীকারবদ্ধ হয়ে সকলকে সাথে নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নেমেছেন কুর্শা ইউনিয়নের মহিলা ইউপি সদস্য হিসেবে দোয়া প্রার্থী বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শ্রী শ্যামল চন্দ্র সরকারের স্ত্রী শ্রীমতি রত্না রানী সরকার।

বিশেষ করে কুর্শা ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের প্রতিটা গ্রাম-পাড়া-মহল্লাবাসীর সাথে রয়েছে তার পারিবারিক ভাবে আত্মীয়তার সম্পর্ক। সব সময় নিজ দায়িত্বে এলাকার প্রত্যেকটি গরীব অসহায় দুস্থ মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছেন স্বামী শ্রী শ্যামল চন্দ্র সরকার।

সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য হিসেবে দোয়াপ্রার্থী শ্রীমতি রত্না রানী সরকারের স্বামী শ্রী শ্যামল চন্দ্র সরকার বলেন, কুর্শা ইউনিয়ন বাসী যদি আমার স্ত্রীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেন, তাহলে আমি অবশ্যই বিগত দিনে যারা নির্বাচিত হয়ে এলাকাবাসীর কাংক্ষিত প্রত্যাশা নিয়ে ছলচাতুরী করেছেন সেই সকল অনাকাঙ্খিত প্রত্যাশা পূরণ করার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ।

এ বিষয়ে কুর্শা ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য হিসেবে দোয়াপ্রার্থী শ্রমতি রত্না রানী সরকার বলেন, এলাকাবাসী যদি আমাকে ভোট দিয়ে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ইউপি সদস্য হিসেবে নির্বাচিত করেন তাহলে জীবনের বাকী দিনগুলো এমনি ভাবেই মানুষের জন্য কাজ করে যাব। কুর্শা ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ড বাসীর ভালোবাসায় ও অনুরোধে আমি আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইউপি সদস্য হিসেবে আত্ম প্রকাশ করে মাঠে নেমেছি। সকলের দোয়া ও আর্শিবাদ নিয়ে সৃষ্টিকর্তার রহমতে বিজয় আমার সুনিশ্চিত হবেই ইনশাআল্লাহ ।

আরও খবর

Sponsered content

error: ছি ! ছি !! কপি করার চেষ্টা করবেন না ।