সারাদেশ

পীরগাছায় জমি নিয়ে একাধিক মামলা: ৭ পরিবারকে উচ্ছেদের হুমকি

  পীরগাছা(রংপুর)প্রতিনিধি: 18 October 2020 , 6:10:49 প্রিন্ট সংস্করণ

পীরগাছায় জমি নিয়ে একাধিক মামলা: ৭ পরিবারকে উচ্ছেদের হুমকি

রংপুরের পীরগাছা উপজেলার পাওটানার পল্লীতে আবু বক্কর নামে এক ব্যক্তির রোষানলে পড়ে মামলায় জর্জরিত হয়ে পড়েছে কাশিম গ্রামের শতাধিক পরিবার। জমিজমা সংক্রান্ত ঘটনায় একের পর এক মামলায় দিশেহারা ওই পরিবারগুলো। এদের মধ্যে ৭টি পরিবারকে সম্প্রতি উচ্ছেদের হুমকি দিয়েছেন আবু বক্কর। এছাড়াও ১১ শতাংশ জমি নিয়ে উত্তাপ্ত হয়ে পড়েছে ওই গ্রামের দুটি পক্ষ। গতকাল শনিবার এসব অভিযোগ করেন ওই গ্রামের সাধারন মানুষ। তারা স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।
অভিযোগে ভিত্তিতে সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলার ছাওলা ইউনিয়নের কাশিম গ্রামের মোহাম্মদ মুহুরীর ছেলে আবু বক্কর জমিজমা সংক্রান্ত ঘটনায় ১৫/১৬টি মামলা দিয়ে ওই গ্রামের শতাধিক পরিবারকে হয়রানী করছে বলে অভিযোগ করছেন মিলন মিয়া, জিয়া, আশরাফুল ইসলাম, আব্দুল করিম, আল আমিন, আব্দুল কুদ্দুছ খলিল মিয়াসহ বেশ কয়েকজন। তারা জানান, পৈত্রিক সুত্রে পাওয়া আব্দুল করিম ও আব্দুল মজিদ এর ২৩৫/৩৬ নং দাগের ৩৮ শতাংশ জমির মধ্যে ১১ শতাংশ জমি মুকুল ও আলম মিয়ার নিকট ১৯৯২ সালে ৬ শতাংশ যার দলিল নং-১২১০, ৭৪৫৫ এবং ১৯৯১ সালে দৌলা মিয়া ও তার স্ত্রী জাহানুর বেগমের নিকট ৫ শতাংশ যার দলিল নং-৩৮৬১ বিক্রি করেন।

পরে তারা দুই পরিবার ওই ১১ শতাংশ জমি হান্নান মিয়া ও রওশন আরা বেগমের নিকট ২০০০ সালে বিক্রি করে দেন। যার দলিল নং-১১৪৭২। অভাবে পড়ে হান্নান মিয়া ও রওশন আরা বেগম ২০১২ সালের মিলন মিয়া নিকট ৫ শতাংশ এবং জিয়া ও আশরাফুল ইসলামের নিকট ৬ শতাংশ বিক্রি করেন। যার দলিল নং-১৩১১ ও ১৩১২। এই ১১ শতাংশ জমির পুর্বের ও বর্তমান ক্রেতারা দীর্ঘ দিন থেকে ভোগ দখল করে আসছিলো। এর তিন বছর পর ২০১৫ সালে হঠাৎ করে জমিটি নিজেদের বলে দাবি করে বসেন আবু বক্কর গং। তারা জামিটি ফিরে পেয়ে একের পর এক মামলা দিয়ে হয়রানী করছেন ওই পরিবারগুলোকে। এমনকি অসহায় ৭টি পরিবারকে বাপ-দাদার ভিটে থেকে উচ্ছেদের জন্য হুমকি দিয়েছেন আবু বক্কর।

গ্রামবাসী মিলন মিয়া, জিয়া, আশরাফুল ইসলাম,আল আমিন, আব্দুল কুদ্দুছ বলেন, এই জমিপি মুল মালিক আব্দুল করিম ্খনো বেচে আছেন। কাগজপত্র ও মুল মালিক বেচে থাকলেও গায়ের জোরে আবু বক্কর জমিটি দাবি করছে। তিনি এলাকার নিরীহ মানুষের নামে মামলা দিয়ে হয়রানী করছেন। আমরা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি এবং আবু বক্করের নামে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।

এদিকে মোবাইল ফোলে আবু বক্করের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, জমিটি আমাদের। সব কাগজপত্র রয়েছে। মুল মালিক এক জমি বার বার বিক্রি করছেন। জমিটি আমাদের দখলে ছিল। অভিযোগকারীরাই সম্প্রতি জোর করে জমিটি দখলে নিয়েছেন। এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

আরও খবর

Sponsered content

error: ছি ! ছি !! কপি করার চেষ্টা করবেন না ।