সারাদেশ

মিঠাপুকুরে হিন্দু পরিবারের ওপর হামলার অভিযোগে আহত ২

  আমিরুল কবীর সুজন,মিঠাপুকুর,রংপুর প্রতিনিধিঃ 12 September 2020 , 7:23:48 প্রিন্ট সংস্করণ

মিঠাপুকুরে হিন্দু পরিবারের ওপর হামলার অভিযোগে আহত ২

মিঠাপুুকুরে একটি হিন্দু পরিবারের ওপর হামলার অভিযোগ পাওয়া
গেছে। হামলায় মা ও মেয়ে আহত হয়েছেন। তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা
হয়েছে। এক আওয়ামী লীগ নেতার নেতৃত্বে হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ
করেছেন হিন্দু পরিবারের কর্তা রতন চন্দ্র মহন্ত। এ ঘটনায় শনিবার ১১
জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা করেছেন তিনি। উপজেলার
জায়গীরহাট এলাকার ঈদুলপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।
হামলার শীকার ওই হিন্দু পরিবার ও থানা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার
লতিবপুর ইউনিয়নের জায়গীরহাট এলাকায় ঈদুলপুর গ্রামে সরকারি জমিতে
দীর্ঘ ৪০ বছর থেকে হিন্দু ধর্মাবলম্বী ৩০-৪০টি পরিবারের বসবাস। শুক্রবার
বিকেলে রতন চন্দ্র মহন্তের বাড়ির পাশে অবস্থিত একটি গোড়াউন ঘরের সামনে
জায়গীরহাট মাল্টি পারপাস সোসাইটির সাইনবোর্ড লাগাতে যান
আওয়ামী লীগের নেতা তোজাম্মল হোসেন। তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের
সিনিয়র সহ-সভাপতি বলে জানা গেছে। ওই সময় রতনের স্ত্রী অঞ্জলী রানী (৪৫)
সাইনবোর্ড লাগানোর বিষয়টি জানতে চাইলে তাকে অতর্কিতভাবে
মারপিট শুরু করে দুবর্ৃত্তরা। এ সময় অঞ্জলীর মেয়ে কলেজ ছাত্রী সমাপ্তী রানী
বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে মাকে বঁাচানোর চেষ্টা করলে তার ওপরও হামলা করে
তারা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় অনেকে জানান, জায়গীরহাট
গরুহাটি সংলগ্ন যে জায়গাটিকে কেন্দ্র করে ঘটনাটি ঘটেছে, সেখানে
ওই মাল্টিপারপাস সোসাইটির দীর্ঘ ১৫-২০ বছর থেকে কোন কার্যক্রম নেই।
সম্প্রতি আওয়ামী লীগ নেতা তোজাম্মল হোসেন ওই মাল্টিপারপাস
সোসাইটির সভাপতি হন। এরপর সম্পত্তি দখলের উদ্দেশ্যে স্থানীয় সংখ্যালঘুদের
সাথে কোন প্রকার আলোচনা ছাড়াই দলবল নিয়ে সোসাইটির সাইনবোর্ড
লাগাতে যান। এসময় হিন্দু পরিবারের সাথে বাক বিতন্ডা শুরু হয়। এক
পর্যায়ে মা ও মেয়ের ওপর হামলা চালায়। এর ফলে তারা আহত হন। পরে তাদেরকে উদ্ধার
করে মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আওয়ামী লীগে নেতা তোজাম্মল হোসেন বলেন,
জমিটি সমবায় অধিদপ্তর থেকে নিবন্ধন প্রাপ্ত জায়গীরহাট মাল্টিপারপাস
সোসাইটির। দীর্ঘদিন সোসাইটির কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও নতুন করে
আমাকে সভাপতি নির্বাচিত করায় আমি সেখানে সাইনবোর্ড লাগাতে
গিয়েছি। অঞ্জলী রানী ও সমাপ্তী রানীকে মারপিটের বিষয়ে জানতে চাইলে
তিনি বলেন, আমি একজন সম্মানী ব্যক্তি। তারা আমার সাথে খারাপ আচারণ
করেছে।
মিঠাপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিরুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায়
মামলা হয়েছে। তদন্ত চলছে। পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আরও খবর

Sponsered content

error: ছি ! ছি !! কপি করার চেষ্টা করবেন না ।