সারাদেশ

লালমনিরহাটে টিআর ও কাবিখা-প্রকল্পের ভাগাভাগি নিয়ে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের মারামারি

  এস, কে সাহেদ, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ 8 November 2022 , 7:35:12 প্রিন্ট সংস্করণ

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় টিআর ও কাবিখা-কাবিটা প্রকল্পের ভাগাভাগি নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের সমর্থকদের মধ্যে হাতাহাতি, মারধর ও অফিসের চেয়ার ভাংচুরের অভিযোগ। গত সোমবার বিকালে হাতিবান্ধা উপজেলা পরিষদে এ ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও উপজেলা পরিষদ সুত্রে জানা যায়, উপজেলায় দীর্ঘদিন ধরে টিআর ও কাবিখা-কাবিটার প্রকল্পের ভাগাভাগি নিয়ে জন প্রতিনিধিদের মধ্যে দ্বন্দ চলে আসছে। ২০২২-২৩ অর্থ বছরের টিআর ও কাবিখা-কাবিটার উপজেলা পরিষদের বরাদ্দ ২০ ভাগের ভাগাভাগি নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুনের অফিসে দুই ভাইস চেয়ারম্যানের সাথে তার বাকবিতন্ডা শুরু হয়। ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন নাহার উপজেলা চেয়ারম্যানকে  গালিগালাজ করতে থাকে। এক পর্যায়ে উপজেলা চেয়ারম্যান অফিস ত্যাগ করে চলে যান। খবর পেয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানের ছোট ভাই ও চাচাসহ তার লোকজন অফিসে এসে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন নাহারের অফিসে ভাংচুর করেন এবং তাকে ও তার স্বামীকে মারধরও করেন এমন অভিযোগ জেসমিন নাহারের।  তবে এ ঘটনার জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুন ও ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন নাহার একে অপরকে দায়ী করছেন।
তবে উপজেলা পরিষদের অপর ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মিরু এ ঘটনার জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুনকে দায়ী করেছেন।
এদিকে এ ঘটনায় রাতে নারী ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন নাহার বাদী হয়ে হাতিবান্ধা থানায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুনের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ করেছেন।
এ ব্যাপারে হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজির হোসেন জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের মধ্যে যে ঘটনাটি ঘটেছে তা দুঃখজনক। এ বিষয়ে তারা যদি আইনী ব্যবস্থা নিয়ে থাকেন তাহলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও খবর

Sponsered content

error: ছি ! ছি !! কপি করার চেষ্টা করবেন না ।