July 7, 2022, 1:07 pm
শিরোনামঃ
তিনদিন নাটকীয়তার পর অবশেষে পঁচা ও দুর্গন্ধযুক্ত চাল ফেরত নিলেন খাদ্য বিভাগ উলিপুরে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি উদ্বোধন উলিপুরে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য সহায়তা তারাগঞ্জ উপজেলায় বিদ্যুৎ লোডশেডিংয়ে জনজীবন বিপর্যস্ত- জ্বালানি সংকটে উৎপাদনে বিঘ্ন উলিপুরে পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্ট্রের পক্ষ থেকে ত্রাণ বিতরণ বাংলাদেশ কেমিস্টস্ এন্ড ড্রাগিস্টস্ সমিতি তারাগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি আখতার সম্পাদক এমদাদুল কৃষি কর্মকর্তা উর্মি তাবাসসুমের অবহেলায় ঝিমিয়ে গেছে তারাগঞ্জের কৃষিখাত লালমনিরহাটে প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেও এমপি’র উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন রাণীশংকৈলে কৃষক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি রহিম-সাধারণ সম্পাদক দ্বিগেন্দ্র উলিপুরে ৩’শ বন্যার্ত পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

সাতক্ষীরায় ৬০ বিঘা জমির মৎস্য ঘেরে বিষ প্রয়োগ! সর্বশান্ত মৎস্য চাষী

সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ
  • সময় : Monday, June 13, 2022
  • 39 ভিউ

পূর্বশত্রুতার জেরে ৬০ বিঘা জমির মৎস্য ঘেরে বিষ প্রয়োগ করে মৎস্যচাষীর প্রায় ১৪ লক্ষ টাকার মাছ মেরে ফেলা হয়েছে। এতে সর্বশান্ত হয়ে গেছে ওই মৎস্যচাষী। সোমবার(১৩ জুন) গভীর রাতে সাতক্ষীরা সদরের লাবসা ইউনিয়নের কৈখালী গ্রামের শুল্কীর বিলে ওই ঘটনা ঘটে।

সোমবার সকালে ঘটনাস্থলে সরেজমিনে যেয়ে দেখা গেছে, ৬০ বিঘা জমির মৎস্য ঘেরে বিষ প্রয়োগের ফলে মাছ মরে গেছে। মাছ ঘের হতে জাল দিয়ে তুলে ঘেরের উপরে রাখা হয়েছে। স্তুপকৃত মাছের পাশে বসে কান্নাকাটি করছেন ঘের মালিকের স্ত্রী নাছিমা খাতুন।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত আলিম, রশিদ, জাহিদ, মোস্তাফিজুরসহ আরো অনেকে বলেন, কৈখালি গ্রামের আমজাদ হোসেন, ইমান হোসেন, আনারুল ইসলাম এর সাথে আলী হোসেনের জমি-জায়গা নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ কারণে তারা রাতের আঁধারে মৎস্য ঘেরে বিষ প্রয়োগ করতে পারে বলে আমাদের ধারণা।

লাবসা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বর ও ঘের মালিক আলি হোসেনের স্ত্রী নাছিমা খাতুন বলেন, আমার ছেলে জুলফিকার আলী আত্মীয়ের বাড়ি থাকার কারনে ঘের পাহারা দেয়ার জন্য একই গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে মুক্তাদির হোসেন রাতে ঘেরের বাসায় অবস্থান করে। রাত আনুমানিক ২ টার দিকে মুক্তাদির আমার কাছে মোবাইল করে বলে যে মৎস্য ঘেরের মাছ পুকুরে লাফালাফি করছে। সংবাদ পেয়েই আমি ও আমার বউমা মুক্তি সুলতানা বাড়ি থেকে মৎস্য ঘেরের দিকে রওনা হই। মৎস্য ঘেরের বেঁড়িতে পৌঁছালে আমরা আমজাদ হোসেন, ইমান হোসেন, আনারুল ইসলামসহ ২/৩ জনকে ঘেরের বেঁড়ি থেকে দ্রুত নেমে যেতে দেখি। আমার ধারণা তারাই আমাদের ঘেরে বিষ প্রয়োগ করেছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাতক্ষীরা থানার এএসআই রওশন আলী সরকার বলেন, মৎস্য ঘেরে ভিষ প্রয়োগ সংক্রান্ত ব্যাপাওে একটি অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। বিষ প্রয়োগের ফলে কয়েক লক্ষ টাকার মাছ মারা হয়েছে। যে বা যারাই এ ঘটনার সাথে জড়িত তদন্ত করে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

সাতক্ষীরা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বিশ্বজিত অধিকারী বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি। তদন্ত চলমান রয়েছে। ঘটনার তদন্ত করে সুষ্ঠু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

সেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও খবর
© All rights reserved © 2019 LatestNews
Designed By BONGGONEWS.COM
themesba-lates1749691102